Currently set to Index
Currently set to Follow
Bangla Book Pdf Download (All)

সহজে ইংরেজী শিখব PDF Download (All)

এসো সহজে ইংরেজি শিখি নাসিম আরাফাতের বই pdf link:

ইংরেজি ভোকাবুলারি বই pdf | ৩০ দিনে ইংরেজী শিখুন pdf

Click Here To Download

ইংরেজিতে জিরো থেকে হিরো (english + spoken) শেখা

Click Here To Download

sohoje english shikhobo pdf book review:

ইসলাম চিরন্তন ধর্ম। হযরত আদম আলাইহিস সালাম থেকে শুরু হয় এ ধর্মের অগ্রযাত্রা । আর রাসূলে কারীম হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের মাধ্যমে তা পূর্ণতায় পৌঁছে। এ ধর্মই কিয়ামত পর্যন্ত সম্্ মানব জাতির জন্য একমাত্র পূর্ণাঙ্গ ও পরিপূর্ণ জীবনব্যবস্থা। ইসলাম ধর্মের এ পরিপূর্ণতার পর নতুন কোন ধর্ম বা নতুন কোন নবী-বাসূলের আগমনের প্রয়োজনীয়তা শেষ হয়ে গেছে। তবে স্বাভাবিকভাবেই কাল পরিক্রমায় এ চিরন্তন ধর্মের গায়েও নানা আবিলতা লাগবে, ধর্মের নামে তাতে অধর্মের অনুপ্রবেশ ঘটবে, দেখা দিবে নানা বিচ্যুতি আর গোমরাহী, একারণে যুগে যুগে তার সংস্কারের প্রয়োজন হবে, আবিলতা আর বিদআত থেকে তাকে পরিচ্ছন্ন করার প্রয়োজন দেখা দিবে । তাই রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আলেম সমাজকেই সংস্কারের এ মহান দায়িত দিয়ে গেছেন। এ কারণে আলেমসমাজই নায়েবে রাসূল, রাসূলের মানসশিষ্য।  রাসূল-পরবর্তী বিগত চৌদ্দশ বছরের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা য়ায়, আলেম সমাজ ধর্মের মৌলিক শিক্ষার ক্ষেত্রে ছিলেন অত্যন্ত কঠোর। একেবারেই অনমনীয়। চুল পরিমান বিচ্যুতিও তীরা তাতে সহ্য করতেন না। মেনে নিতেন না। উপরন্তু তীরা যুগ-চাহিদা সম্পকে কখনো উদাসিন ছিলেন না। গাফেল ছিলেন না।  শিয়া সম্প্রদায়ের ভ্রান্ত মতবাদ ইসলামী জগতে ছড়িয়ে পড়লে আলেম সমাজই আকায়েদের উপর ভিন্ন ভিন্ন পুস্তক রচনা-করে তা সমাজে ছড়িয়ে দেন। এবং শিয়া সম্প্রদায়ের ভ্রান্ত মতবাদের দাঁতভাঙ্গা জওয়াব দেন। অবশেষে তা একটি পূর্ণাঙ্গ শাস্ত্রের রূপ ধারণ করে।

প্রাচীন আকায়েদের গ্রহ্গুলো তার সাক্ষ্য বহন করে আসছে।  আব্বাসী খিলাফত কালে এল আরেক বিপদ। আরেক পরীক্ষা। গ্রীক দর্শন ইসলামী সমাজে অনুপ্রবেশ করল এবং মানতেক (যুক্তি বিদ্যা ) শান্তর ইসলামী জগতে এক তুমুল আলোড়ন সৃষ্টি করে যুক্তির ছত্রছাড়ায় তাওহীদ বা একত্বাদের উপর প্রচণ্ড আঘাত হানতে শুরু করল, তখন ইমাম তৃহাবী ও ইমাম গাজালীর মতো যুগশ্রেষ্ঠ মনীষী আলেমরাই ইলমে মানতেককে পরিশোধিত ও পরিমার্জিত করে ইসলামী ইলমে পরিণত করে তা দিয়েই একতৃবাদকে প্রমাণিত করলেন। সব ধশ্বজালকে দূর করে দিলেন। যার প্রয়োজনীয়তা আমরা নির্ধিদধায় স্বীকার করি। ফলে.আজৌ অনেক মাদরাসায় মানতেকের গ্রন্থসমূহ গুরুতুসহকারে পাঠদান করা হয়।  বিজয় বেশে ইসলাম পারস্য সাম্রাজ্যে প্রবেশ করার পর সচেতন আলেম সমাজ শিরক ও কুফরে ভরা হাজার বছরের প্রাচীন ফারসি সাহিত্যের উপর এমন প্রচণ্ড আঘান হেনেছিলেন যে, ফারসি সাহিত্যে কুফর ও শিরকের নাম গন্ধও বাকি রইল না। অবশেষে ধর্মীয়ভাষার রূপ ধারণ করেছে। ফলে আজো গুলিস্তা, বুসতা, মসনবী প্রভৃতি ফারসি গ্রন্থসমূহ কওমী মাদরাসার নেসাবের অর্তভূক্ত হয়ে আছে।  উর্দূ ভাষার কথাই চিন্তা করুন। মোগল সাম্রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলের সৈন্যরা একই সেনানিবাসে থাকার ফলে তাদের মাঝে এক মিশ্রভাষার প্রচলন ঘটে । ধীরে ধীরে এ ভাষাই শুরু হয়.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button