Currently set to Index
Currently set to Follow
Bangla Book Pdf Download (All)

রেটিনা দাগানো বই PDF Download❤️(All)

All Retina Daganu book PDF links:

Retina Daganu book Physics 1st Paper Pdf Download -রেটিনা দাগানো বই পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র pdf
Download

Retina Daganu book Physics 2nd Paper Pdf Download -রেটিনা দাগানো পদার্থবিজ্ঞান ২য় পত্র pdf
Download

Retina Daganu book Chemistry 1st Paper Pdf Download -রেটিনা দাগানো বই রসায়ন ১ম পত্র PDF
Download

Retina Daganu book Chemistry 2nd Paper Pdf Download -রেটিনা দাগানো বই রসায়ন ২য় পত্র
Download

Retina Daganu book Botany Pdf Download -রেটিনা দাগানো বই উদ্ভিদবিজ্ঞান pdf
Download

Retina Daganu book Zoology Pdf Download -রেটিনা দাগানো বই প্রানীবিজ্ঞান PDF
Download

ছায়ামানুষ:-
ছায়ামানুষ গল্পের নায়িকা কেয়া, যিনি এক তরুণের প্রেমে পড়েন। প্রেম কখনো বয়স, চরিত্র দেখে না এ কথাটির প্রতিফলন ঘটে কেয়ার মধ্যে। তরুণ ছেলেটির প্রতি কেয়া পুরোপুরি নির্ভরশীল হয়ে যায়। ঘটনা এভাবেই এগিয়ে চলে। একদিন কেয়া বাসায় এসে দেখে তাদের গয়নার বাক্স খালি। ভেতরের গয়না নেই! এদিকে কেয়া তরুণ কে ফোন দিলো কিন্তু সে ফোন ধরে না।
তরুণ ছেলেটি কে, গয়নার বাক্স খালি কেন? গয়নার বাক্সের সাথে কি তরুণের কোন যোগসূত্র আছে?
শূন্যস্থান:-
শূন্যস্থান গল্পটি মিলি ও মোহিতকে নিয়ে। মোহিত ফোন কোম্পানি তে কাজ করতো। মিলির ফোন হারিয়ে যাবার মধ্যে দিয়ে মোহিতের সাথে যোগাযোগ হয়। সম্পর্ক গভীর হয়। তারা এখন প্রায় দেখা করে। তারা দু’জনে প্লান করে সিলেটের দুসাই রিসোর্টে যাবে। সবকিছু প্লান মতো চলতে চলতে যাওয়ার দিন আর যাওয়া হয়নি। এরপর মিলির সাথে মোহিতের সম্পর্ক শেষ হয়ে যায়।
মিলি ও মোহিতের সম্পর্ক হঠাৎ ফাটল ধরার কারণ কি? মোহিত আরেকটি বিষন্ন সন্ধ্যার অপেক্ষায় থাকে কেন?
নিহত জ্যোৎস্না:-
বইয়ের নাম-গল্প নিহত জ্যোৎস্না। গল্পে দেখা যায় অতীতে স্বামী-স্ত্রী-সন্তান তিনজনের সুখী পরিবার ছিল। কিন্তু স্বামী পরকিয়ায় লিপ্ত হয়। অর্থাৎ স্বামীর সাথে অন্য একটা মেয়ের সম্পর্ক আছে জানতে পারে। সেটি জানার পর তার স্বামী থেকে আলাদা থাকতে শুরু করে সে। স্বামী-স্ত্রীর আলাদা হবার কুফল তাদের সন্তানের উপর পরে। পরিসমাপ্তিতে তাদের সন্তানের কি হয়?
প্রতীক্ষা:-
পরীক্ষার মার্কশীট হাতে পেয়ে চমকে ওঠে নাহিদ, ফলাফল খারাপ করেছে। ফলাফলের কথা বাবা-মাকে কিভাবে বলবে? এজন্য সে দূরে কোথাও চলে যায়। এদিকে বাবা-মা দুপুর গড়িয়ে বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষা করে। নাহিদের দেখা নেই! এভাবেই এগিয়ে চলে গল্পটি। নাহিদের কি একদিনেও বাবা-মার কথা মনে পড়েনি? বাবা রাগী, মার কথাও কি তার একবার মনে পড়তো না?
ঘোর:-
ঘোর গল্পটি রচিত হয়েছে একজন তরুণ চিকিৎসকের পেশাগত দায়িত্ব ও তার সন্তান সম্ভবা স্ত্রীকে ঘিরে। গল্পে প্রতিফলিত হয়েছে দায়িত্ব ও দুটি সত্যের সংঘাত। সত্যের সংঘাত টা কি?
সেরা কথোপকথন:-
“তোমার কাছ থেকে এসেছি আজ কত বছর হলো?”
“পাঁচ বছর।”
“হুঁম। এই পাঁচটি বছরে প্রতিবারই প্রকৃতিতে ফাগুন এসেছে। বসন্তও এসেছে। জানো তো? ফাগুন মাসেই জন্মেছিলাম কিনা! তাই ফাগুনকে ভুলতে পারি না। শুধু সেই কাঙ্খিত মানুষটির দেখা পাইনি। একটি বারের জন্যও না। মনেও করেনি সে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button