Currently set to Index
Currently set to Follow
Bangla Book Pdf Download (All)

ব্রেন ওয়েভস বই PDF Downl0oad (9 MB)

Brain Waves Bangla Book PDF – অনেক তথ্যবহুল। বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের জন্য অনেক উপকারে আসবে,যদি পড়ার পাশাপাশি জীবনে প্রয়োগ করে. অসাধারণ বই রকমারি কে ধন্যবাদ এরকম একটি দুর্লভ বই আমাদেরকে পাইয়ে দেয়ার জন্য কিন্তু ডেলিভারি আরেকটু দ্রুত হলে খুশি হতাম.

বইঃ ব্রেন ওয়েভস
✒️লেখকঃ ডা:মোঃ আবেদুর রহমান
📝পাঠকঃ ফাহিম ইনতিশার রাভি
⏱️ প্রকাশ কাল- ২০২১
ক্যাটাগরি- স্বাস্থ্য বিষয়ক বিবিধ বই

#ব্রেনওয়েভস

___________________________
মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। কারণ মানুষের মধ্যে রয়েছে জ্ঞান, বুদ্ধি ও বিবেক; যা সৃষ্টির অন্য কোনো জীবের মধ্যে নেই। সৃষ্টিকর্তা আমাদের ৩ পাউন্ড ওজনের একটা মস্তিষ্ক দান করেছেন। যার সাহায্যে আমরা জ্ঞান, বুদ্ধি ও বিবেকের সমন্বয় করে জীবন পরিচালনা করি।
আচ্ছা, আমরা তো আমাদের চেহারার সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য নানা রকম রকম ক্রিম, পাউডার, সৌন্দর্যবর্ধক উপকরণ ব্যবহার করি, যাতে আমাদের ত্বক ভালো থাকে। তারপর আমরা আমাদের চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন রকম শ্যাম্পু দেই, তেল দেই; চুলের যত্ন করি। কিন্তু আমাদের ব্রেইন যা কিনা আমাদের সার্বিক ক্রিয়া-বিক্রিয়ার পরিচালক, তার কি যত্ন নেই আমরা? আমরা কি জানি আমাদের ব্রেন কোন বিষয়ে বেশি আগ্রহী? কিসে বেশি সুখ পায়? কি করলে ভালো থাকে?
উত্তর: হয়তো না!!
আমাদের ব্রেনেরও তো যত্নের প্রয়োজন আছে।তাই আমাদের ব্রেনকে জানতে হবে, বুঝতে হবে এবং সঠিকভাবে ব্যবহার করতে হবে।

☆==☆ ব্রেন ওয়েভস কী☆==☆
___________________________
ব্রেন ওয়েভস মূলত আপনার কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের (মস্তিষ্ক) দ্বারা উৎপাদিত বৈদ্যুতিক ক্রিয়াকলাপের পুনরাবৃত্ত নিদর্শন। নিউরনের একটি দল যখন অন্য গ্রুপের নিউরনের কাছে বৈদ্যুতিক ডালের একটি ফাটল প্রেরণ করে, তখন এটি তরঙ্গ-জাতীয় প্যাটার্ন তৈরি করে।

☆==☆বইয়ের‌ বিষয়বস্তু ☆==☆
___________________________
বিজ্ঞানীরা কমপক্ষে ৫ ধরনের মস্তিষ্কের তরঙ্গ বা ব্রেন ওয়েভস চিহ্নিত করেছেন: বিটা তরঙ্গ, আলফা তরঙ্গ, থিটা তরঙ্গ, ডেল্টা তরঙ্গ এবং গামা তরঙ্গ। বিভিন্ন ধরনের ব্রেন ওয়েভস একই সাথে আমাদের মস্তিষ্কে উপস্থিত থাকতে পারে। এই ধরনের মস্তিষ্কের তরঙ্গের প্রতিটি ফ্রিকোয়েন্সি প্রতি সেকেন্ডে (হার্টজ) এ পরিমাপ করা হয়।
✓আলফা ওয়েভ আমাদের জন্য অনেক উপকারী।
আলফা ওয়েভের ফলে- ব্রেন ঠান্ডা থাকে, পড়াশোনা ভালো হয়, কাজকর্ম ও আচার-আচরণ ভালো হয়, চেহারা উজ্জ্বল হয়, ব্যক্তিত্ব উন্নত হয় প্রভৃতি। আলফা তরঙ্গ বেশি থাকলে বিবেক সক্রিয় থাকে, তখন মানুষ পাপ কাজ করতে পারেনা।
✓কোরআন পড়লে বা শুনলে, গভীর মনোযোগের সাথে জিকির করলে ও ধ্যান করলে ব্রেনে আলফা তরঙ্গ তৈরি হয়। যারা কুরআন পড়ে, জিকির করে তাদের ব্রেনে অনেক সময় ধরে আলফা ওয়েভ থাকে, ফলে তাদের ঘুমের প্রয়োজন কম হয়; অল্প ঘুমে হয়ে যায়। ভোররাতে( রাতের চতুর্থ প্রহর অর্থাৎ রাত ৩ টা থেকে ভোর ৬ টা ) ব্রেনে আলফা তরঙ্গ বেশি থাকে, ফলে ইবাদতে মনোযোগ বেশি আসে, এজন্য এসময়ে বেশি বেশি ইবাদত(তাহাজ্জুদের নামাজ ) করতে উৎসাহিত করা হয়।
~লেখক কাজী নজরুল ইসলাম তার বিখ্যাত “কারার ঐ লৌহ কপাট” কবিতাটি রাত তিনটা থেকে ফজরের আজান হওয়া পর্যন্ত লিখেছিলেন।

খোলা আকাশে ব্যায়ামের সময় ব্রেনে আলফা ওয়েভ তৈরি হয়। আইনস্টাইন নিয়মিত সাইকেল চালাতেন।~তিনি বলেন, e=mc^2 সূত্র টা আমার মাথায় সাইকেল চালানোর সময় এসেছিল।
✓ডিপ্রেশনে সবচেয়ে ভালো চিকিৎসা হলো ব্যায়াম। ব্যায়াম করলে সেরোটোনিন হরমোন নিঃসরণ হয়; যা মন ভালো করে, বিষণ্নতা ও বরিংনেস কমায়।
√নিয়মিত ব্যায়াম করলে স্মরণশক্তি বাড়ে, শেখার ক্ষমতাও বাড়ে। ব্রেনের কোষগুলোর ১০ % এর কম মানুষ ব্যবহার করে, আর বাকি ৯০ % নিষ্ক্রিয় থাকে।
৬-৮ সপ্তাহের ব্যায়াম স্মরণশক্তি আর শিক্ষালাভের কাজে নিয়োজিত ব্রেনের হিপোক্যাম্পাস অংশতে নতুন সক্রিয় কোষের সংখ্যা বাড়ে দুই থেকে তিনগুণ। এতে স্মরণশক্তি ও শিক্ষালাভের ক্ষমতা বাড়ে। ব্যায়াম বন্ধ করলে এক মাসের মধ্যে আবার ব্রেন পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসে।~নিয়মিত ব্যায়ামের ফলে এন্ড্রোজেন হরমোন নিঃসরণ হয়, যা মনে ফুর্তি আনে।
✓অল্প অল্প করে বারবার খাবার খেলে-
১. বেশি এন্ডোরফিন হরমোন নিঃসরণ হয়, আর মন ভালো থাকে।
২. অতিরিক্ত ওজন কমে।
৩. ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে।
৪. গ্লুকোজ সাপ্লাই অনবরত থাকে, ফলে ব্রেন ভালো কাজ করে।
৫. স্ট্রেস হরমোন কর্টিসল কম বের হয়, ফলে শরীর ভালো থাকে।
এরকম বেশ কিছু কনসেপ্ট নিয়ে ডা:মোঃ আবেদুর রহমান তার “ব্রেন ওয়েভস” বইটিতে আলোচনা করেন।

☆==☆পাঠ্যাভিমত☆==☆
______________________
সামগ্রিকভাবে বইটি আমার বেশ ভালো লেগেছে।
আপনারা যারা মানসিক শক্তির উন্নয়নে এবং ব্রেনের সঠিক ব্যবহারের প্রতি আগ্রহী, তারা চাইলে এই বইটি পড়তে পারেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button